মাদক বিরোধী অভিযানে মাদকসহ আটক ৩

0
135

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ খুলনা জেলা মাদকদ্র্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় মাদক বিরোধী পৃথক অভিযান চালিয়ে ৩ জন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছেন। আটককৃতরা হচ্ছে সুজন কেষ (২২), মোহাম্মদ (২০) ও অঞ্জনা (৩০)। এছাড়া শেখ আলাল (৪০) নামে এক ইয়াবা ব্যবসায়ী অভিযানে সময় পালিয়ে যায়। এ সময় ইয়াবা ও গাজা উদ্ধার করা হয়। আটককৃতদের ভ্রম্যমান আদালতের মাধ্যমে বিভিন্ন মেয়াদে সাজা প্রদান করা হয়। রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইলিয়াছুর রহমান ও ফরিকহাট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোসাঃ  শাহনাজ পারভিন পৃথক ভাবে মোবাইল কোর্ট পরিচালনা করেন। সোমবার (১৫ অক্টোবর) দিন ব্যাপী রূপসা ও ফকিরহাটে অভিযান চালিয়ে তাদেরকে আটক করা হয়।
জেলা মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ কার্যালয় সূত্র মতে, সংস্থার উপ-পরিচালক মোঃ রাশেদুজ্জামানের তত্ত্বাবধায়নে গোয়েন্দা ও ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শক রূপনা ও ফকিরহাটে মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন। গোয়েন্দা শাখার পরিদর্শক পারভীন আক্তারের নেতৃত্বে একটি টিম ফকিরহাট উপজেলা লালচন্দপুর গ্রামে অভিযান চালান। এ সময় ওই এলাকার বাসিন্দা জামির শেখের পুত্র সুজন শেখকে ৫০ গ্রাম গাজা সহ আটক করেন। একই উপজেলায় সাতবাড়িয়া গ্রামে অপর অভিযানে হালিম ফরাজীর পুত্র মোহাম্মদকে ৫০ গ্রাম গাজা সহ আটক করা হয়। পরবর্তীতে বাগেরহাট জেলার ফকিরহাট উপজেলার নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোসাঃ শাহনাজ পারভীন ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করেন আটককৃতদের ১৫ দিন করে বিনাশ্রম কারাদ- প্রদান করেন। এছাড়া বাগেরহাট জেলায় রনজতিপুর গ্রামে অভিযান চালিয়ে মৃত সোনা উদ্দিনের পুত্র শেখ আলাল এর ঘরে অভিযান চালিয়ে ২০পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। এ সময় অভিযানে টের পেয়ে ইয়াবা ব্যবসায়ী আলাল পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকের আইনে মামলা দায়ের করা হয়। অপর রূপসা উপজেলায় ‘খ’ সার্কেলের পরিদর্শত মোঃ সাইফুর রহমান রানার নেতৃত্বে একটি টিম মাদক বিরোধী অভিযান পরিচালনা করেন। এ সময় পিঠাভোগ গ্রামে অভিযান চালিয়ে স্থাণীয় বাসিন্দা সোহলে শেখের স্ত্রী অঞ্জনাকে ৫০ গ্রাম গাজা সহ আটক করা হয়। পরবর্তীতে রূপসা উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ ইলিয়াছুর রহমান ভ্রম্যমান আদালত পরিচালনা করে তাকে ১৫ দিনের কারাদ- প্রদান করেন।