বার্নসের সেঞ্চুরিতে ইংল্যান্ড বড় লিডের পথে

0
82

খুলনাটাইমস স্পোর্টস: অস্ট্রেলিয়ার পেস আক্রমণ সামলে ক্যারিয়ারে প্রথম সেঞ্চুরি তুলে নিয়েছেন ররি বার্নস। এই ওপেনারের দৃঢ়তায় এজবাস্টন টেস্টে বড় লিডের আশা জাগিয়েছে ইংল্যান্ড।
দ্বিতীয় দিনের খেলা শেষে ইংল্যান্ডের সংগ্রহ ৪ উইকেটে ২৬৭ রান। ৬ উইকেট হাতে নিয়ে ১৭ রানে পিছিয়ে আছে জো রুটের দল। আগের সেরা ৮৪ ছাড়িয়ে ১২৫ রানে ব্যাট করছেন বার্নস। চতুর্থ উইকেটে তার সঙ্গে অবিচ্ছিন্ন ৭৩ রানের জুটি গড়া বেন স্টোকস খেলছেন ৩৮ রানে।
বার্মিংহ্যামে শুক্রবার বিনা উইকেটে ১০ রান নিয়ে খেলা শুরু করা ইংল্যান্ড শুরুতেই হারায় জেসন রয়কে। জেমস প্যাটিনসনের বলে দ্বিতীয় স্লিপে ধরা পড়েন বিস্ফোরক এই ওপেনার।
দ্বিতীয় উইকেটে শতরানের জুটিতে ইংল্যান্ডকে এগিয়ে নেন বার্নস ও রুট। এক হাতে অসাধারণ এক ফিরতি ক্যাচ নিয়ে রুটকে থামিয়ে ১৩২ রানের জুটি ভাঙেন পিটার সিডল। ইংলিশ অধিনায়ক ৬ চারে করেন ৫৭ রান।
বেশিক্ষণ টিকেননি জো ডেনলি ও জস বাটলার। ১৯৪ রানে ৪ উইকেট হারানো ইংল্যান্ডের বড় লিডের আশা জেগেছে বার্নস-স্টোকস জুটিতে। তাদের দায়িত্বশীল ব্যাটিংয়ে চালকের আসনে বসেছে স্বাগতিকরা।
বাড়তি ঝুঁকি নেননি তারা কেউই। কঠিন সময় পার করেছেন মাটি কামড়ে। ইংলিশদের টেস্টে দ্রুত রান তোলার জন্য পরিচিতি থাকলেও এদিন রান রেট ছিল তিনের নিচে। ১২৫ রান করার পথে ২৮২ বলের ইনিংসে ১৬টি বাউন্ডারি হাঁকিয়েছেন বার্নস। অলরাউন্ডার স্টোকসের ৭১ বলের ইনিংস গড়া ৬ চারে।
কঠিন একটি দিন পার করেছেন অস্ট্রেলিয়ার বোলাররা। ইংলিশ পেসারদের মতো অতোটা সুইং পাননি প্যাটিনসন, পিটার সিডল, প্যাট কামিন্সরা। স্পিনার ন্যাথান লায়ন ২৮ ওভার বোলিং করেও উইকেটশূন্য।
সংক্ষিপ্ত স্কোর:
অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ২৮৪
ইংল্যান্ড ১ম ইনিংস: (আগের দিন শেষে ১০/০) ৯০ ওভারে ২৬৭/৪ (বার্নস ১২৫*, রয় ১০, রুট ৫৭, ডেনলি ১৮, বাটলার ৫, স্টোকস ৩৮*; কামিন্স ২১-৬-৬৫-১, প্যাটিনসন ১৭-২-৫৪-২, সিডল ২১-৫-৪৩-১, লায়ন ২৮-৪-৭৯-০, ওয়েড ১-০-৭-০, হেড ২-১-৭-০)