নগরীতে একাধিক প্রতিষ্ঠানের অংশগ্রহনে চলছে তথ্যমেলা

0
52
????????????????????????????????????

মারুফ গাজীঃ নগরীতে চলছে দুদিনব্যাপি তথ্যমেলা ২০২০। মেলার শেষ দিন আজ। জানবো জানাবো, দুর্নীতি রুখবো শ্লোগান নিয়ে মেলার প্রথমদিন মঙ্গলবার সকাল থেকেই শুরু হয় এ আয়োজন। তথ্যসেবা দিতে এবারের মেলায় অংশগ্রহন ১৪টি সরকারি ও ৮টি বেসরকারি সহ মোট ২২টি প্রতিষ্ঠানের। জেলা প্রশাসন ও সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) এমন আয়োজনের প্রধান পৃষ্ঠপোষক। মেলার উদ্বোধন করেন সিটি মেয়র তালুকদার আব্দুল খালেক।
মেলায় ঘুরতে আসা দর্শনার্থীদের সাথে কথা বলে জানা যায়, আগতদের মধ্যে রয়েছে শিক্ষার্থী সহ নানা শ্রেণীপেশার মানুষ। মেলার প্রথম দিনে যথেষ্ট লোক সমাগম লক্ষ্য করা গেছে। মেলায় ঘুরতে আসা একজন ইমরান মাতুব্বর, শরীয়তপুর পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটে আইপিসিটি বিভাগে অধ্যয়নরত। খুলনাটাইমস এর প্রতিবেদককে তিনি বলেন, এখানে এসে আমি নতুন অনেক কিছু জানতে পেরেছি। পিআইডি সম্পর্কে এই প্রথম আমি জানতে পারলাম, এর আগে এ বিষয়ে আমি একদমই জানতাম না। এটা আমার কাছে খুবই ভালো লেগেছে। তাছাড়া মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর সম্পর্কেও আমি নতুন ভাবে জানতে পারছি। যেকোন বিষয়ে আমার নিকটতস্থ মহিলা আত্মীয়দেরকে এ প্রতিষ্ঠানের স্মরণাপন্ন হতে বলবো।
মেলায় আসা অপর একজন খাদিজা পারভীন। তিনি খুলনাটাইমসকে বলেন, মেলায় আসতে পেরে আমি আনন্দিত। দুদকের হেল্পলাইন ১০৬ এ কল দিয়ে অভিযোগ করার বিষয়টি আমি নতুনভাবে জেনেছি। তাছাড়া, প্রতিটি স্কুল পর্যায়ে সততা সংঘের কার্যক্রমের পাশাপাশি উপজেলা পর্যায়েও তাদের এ কমিটি রয়েছে এ ব্যাপারেও আমি আগে জানতাম না। এখানে এসে সেটা আমি জানতে পেরেছি।
তথ্য মেলায় সেবা দিতে আসা ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ইনস্পেক্টর মো: হাবিবুল্লাহ খুলনাটাইমসকে জানান, মেলার প্রথম দিনে প্রায় শতাধিক দর্শনার্থী বিভিন্ন তথ্য জানতে চেয়েছেন। জরুরী প্রয়োজনে ৯৯৯ এ কল দিয়ে সেবা পেতে পারে এ বিষয়টি তারা আগতদেরকে জানাচ্ছেন। তিনি বলেন, যেসকল তথ্য জনগণ জানতো না এখানে এসে সহজেই তারা তা জানতে পারছেন। এতে করে জনগণ এবং ফায়ার সার্ভিসের সম্পর্ক আরো বেশি সূদৃঢ় হবে বলে মনে করছেন তিনি।
জেলা পুলিশের এস আই জয়ন্ত কুমার খুলনাটাইমসকে বলেন, আমাদের পক্ষ থেকে পুলিশের বিভিন্ন অনলাইন সেবাগুলো কিভাবে পেতে পারে সে বিষয়ে জানানো হচ্ছে। এছাড়া মেলার প্রথম দিনে জেলা পুলিশ সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য জানতে চেয়েছেন অনেকে।
বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি খুলনা সিটি ইউনিটের সেক্রেটারি মল্লিক আবিদ হোসেন কবির খুলনাটাইমসকে বলেন, আমাদের প্রতিষ্ঠানটি আন্তর্জাতিক সমাজসেবা মূলক একটি সংস্থা। তথ্য মেলায় আমরা আগত অতিথিদের রক্তের গ্রুপ নির্ণয়ে কাজ করে যাচ্ছি। তবে, মূলত দূর্যোগকালীন সময়ে ক্ষতিগ্রস্থ মানুষের সহায়তায় এগিয়ে আসে আমাদের এ সংস্থাটি।
সরেজমিনে পর্যবেক্ষন করে দেখা যায়, এবারের মেলায় সরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে অংশগ্রহন করেছে কাস্টমস এক্সাইজ ও ভ্যাট কমিশনারেট, খুলনা কর অঞ্চল, খুলনা জেলা পুলিশ, খুলনা ওয়াসা, বিভাগীয় পাসপোর্ট ও ভিসা অফিস, ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স, কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর, জেলা কর্মসংস্থান ও জনশক্তি অফিস, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর, বাংলাদেশ ডাক বিভাগ, জেলা সমাজসেবা কার্যালয়, দুর্নীতি দমন কমিশন, পি আই ডি, জেলা প্রশাসন ও জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর। মেলায় বেসরকারি প্রতিষ্ঠান হিসেবে অংশগ্রহন করেছে বাংলাদেশ রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটি, খুলনা মুক্তিসেবা সংস্থা, রুপান্তর, আমেরিকান কর্ণার, বিডি ক্লিন, ইয়েস ইয়েস ফ্রেন্ডস স্বজন এবং সনাক ও খুলনা এ্যাডভোকেন্সি এন্ড লিগ্যাল অ্যাডভাইজ সেন্টার (এলাক)।
খুলনার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (এলএ) মোঃ ইকবাল হোসেনের সভাপতিত্বে তথ্য মেলার এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন দুর্নীতি দমন কমিশন খুলনার বিভাগীয় পরিচালক মোঃ আব্দুল গাফফার, ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তরের উপপরিচালক এসএম নাজিমুল ইসলাম, খুলনা আঞ্চলিক তথ্য অফিসের উপপ্রধান তথ্য অফিসার ম. জাভেদ ইকবাল, অতিরিক্ত পুলিশ কমিশনার (ক্রাইম) এস এম ফজলুর রহমান এবং খুলনা প্রেসক্লাবের সভাপতি এসএম নজরুল ইসলাম। অনুষ্ঠানে স্বাগত জানান সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক) খুলনার এর সহ-সভাপতি একে হিরু।


একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here