দৈনিক জন্মভূমি’র বার্তা সম্পাদক আনোয়ার আহমেদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী কাল

0
66

খবর বিজ্ঞপ্তি:
আগামীকাল ১১ জুলাই বৃহস্পতিবার প্রবীণ সাংবাদিক, দৈনিক জন্মভূমি’র বার্তা সম্পাদক, খুলনা প্রেসক্লাবের সাবেক কোষাধ্যক্ষ,অবিভক্ত খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাবেক সাধারণ সম্পাদক ও মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি আনোয়ার আহমেদের দ্বিতীয় মৃত্যুবার্ষিকী। ২০১৭ সালের ৪ জুলাই টানা ৮দিন অচেতন থাকার পর পরিবার, আত্মীয়, সাংবাদিক ও শুভাকাঙ্খীদের শোক সাগরে ভাসিয়ে গত বছর ১১ জুলাই সকাল সাড়ে ৬টায় রাজধানী ঢাকার লিজেন্ড হাসাপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি ইন্তেকাল করেন। এ উপলক্ষে মরহুমের পরিবারের পক্ষে বসুপাড়া কবরখানাস্থ আনোয়ার আহমেদেও কবর জিয়ারতসহ পারিবারিক কর্মসূচি পালিত হবে।
আনোয়ার আহমেদ ১৯৫৩ সালে বৃহত্তর কুষ্টিয়ায় জন্মগ্রহণ করেন এবং ১৯৫৬ সালে তার পিতার সাথে স্বপরিবারে খুলনার বসুপাড়া ক্রস রোডে স্থায়ী বসবাস শুরু করেন। তার পিতার নাম শেখ আব্দুল জব্বার এবং মায়ের নাম আনোয়ারা খাতুন। ৬ ভাইদের মধ্যে তিনি সবার বড়।
মরহুম সাংবাদিক আনোয়ার আহমেদ খুলনার সংবাদপত্র জগতে ৪০বছর ধরে দাপটের সাথে কাজ করেছেন এবং তিনি খুলনা ও ঢাকায় কর্মরত অনেক প্রতিভাবান ও প্রতিষ্ঠিত সাংবাদিকের শিক্ষা গুরু হিসেবে কিংবদন্তী হয়ে আছেন। সংবাদপত্রের সকল স্তরের দক্ষতা অর্জনকারী আনোয়ার আহমেদ নিজেই খেলার রিপোর্টার ও বিশ্লেষক ছিলেন।
বাংলা ভাষার উপর প্রবল দক্ষতা, ভাষার সুনিপন শব্দ ব্যবহারে তিনি ছিলেন অপ্রতিদ্বন্দ্বী। বিশেষ করে সমসায়িক ঘটনাবলীর চমক লাগানো শব্দ দিয়ে নিউজের শিরোনাম এবং বাক্য ব্যবহারে তিনি ছিলেন অতুলনীয়। একজন চলমান কবি, লেখক হিসেবেও তিনি সুখ্যাতি লাভ করেন। খুলনার সংবাদপত্র জগতে তিনি সবচেয়ে বেশি সময় ধরে বার্তা সম্পাদকের দায়িত্ব পালনের বিরল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। তিনি আশি’র দশক থেকে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত বাংলাদেশ বেতার খুলনা কেন্দ্রের বিভিন্ন অনুষ্ঠানের স্ক্রিপ রাইটার, দৃষ্টিপাত ম্যাগাজিন অনুষ্ঠানের গ্রন্থনা করেছেন। প্রকাশিত হয়েছে জলবায়ূ পরিবর্তন জনিত কারণে উপকূলীয় এলাকার সমস্যা-সমাধান, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও দুর্যোগ পরবর্তী করণীয় শীর্ষক একাধিক বই। আপদামস্তক একজন গণমাধ্যম কর্মী হিসেবে তিনি সর্বদা নিষ্টা ও আন্তরিকতার সাথে গণমাধ্যমের সেবক হিসেবে কাজ করেছেন। সদা হাস্যোজ্জ্বল ও সদালাপী এবং সাধারণ চলনে, বসনে এবং পরিধানে তিনি ছিলেন আদর্শনীয়। সহকর্মীদের আপন করে নেওয়া এবং হাতে কলমে কাজ শেখানো ছিল তার নেশা ও পেশা। তিনি আশ্রয় ফাউ-েশন নামে একটি বেসরকারি সংস্থার সাথে যুক্ত ছিলেন।
সাংবাদিক আনোয়ার আহমেদ ¯œাতক শেষ করে সরকারি চাকরীতে না যেয়ে সাংবাদিকতা পেশা বেছে নেন। তিনি ১৯৭৭ সালে অধূনালুপ্ত খুলনার প্রথম দৈনিক সংবাদপত্র দৈনিক জনবার্তায় সহকারী সম্পাদক হিসেবে যোগদান করেন। একই সময় তার ছোট ভাই সাংবাদিক সানোয়ার পারভেজও সংবাদপত্রে যোগ দেন। এর পর কিছু দিনের জন্য দৈনিক গণদেশে কাজ করেছেন। পরে আবারও জনবার্তায় ফিরে যান এবং জনবার্তার দ্বিতীয় বার্তা সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করেন। পরবর্তীতে তিনি দৈনিক অনির্বাণের বার্তা সম্পাদক হিসেবেও কাজ করেন। ২০০৭ সালে তিনি দৈনিক জন্মভূমিতে যোগ দেন এবং মৃত্যুর আগ পর্যন্ত তিনি সে দায়িত্ব নিষ্ঠার সাথে পালন করে গেছেন। সুদীর্ঘ ৪০ বছর সংবাদপত্র জগতে থেকে তিনি খুলনা প্রেসক্লাবের গঠনতন্ত্র প্রণেতাদের অন্যতম সদস্য ছিলেন। এছাড়া খুলনা প্রেসক্লাবের কোষাধ্যক্ষসহ নির্বাহী কমিটির বিভিন্ন পদে বিভিন্ন সময় দায়িত্ব পালন করেন। তিনি অবিভক্ত খুলনা সাংবাদিক ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন এবং মেট্রোপলিটন সাংবাদিক ইউনিয়নের সভাপতি হিসেবে জীবনের শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত দায়িত্বে ছিলেন।


একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here