টি-২০ সিরিজের গুরুত্বপূর্ণ ২য় ম্যাচের আগে ফিল্ডিং ঝালিয়ে নিতে চায় অদম্য টাইগাররা

0
49

খুলনাটাইমস ডেস্ক : স্বাগতিক ভারতের বিপক্ষে চলমান টি-২০ সিরিজে জয়ী প্রথম ম্যাচে বাংলাদেশ দলের ফিল্ডিংয়ে কিছু ঘাটতি চোখে পড়েছিল। সাত উইকেটে জয়ী হয়ে তিন ম্যাচের সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেছে টাইগাররা। টানা দ্বিতীয় ম্যাচ জয়ের মাধ্যমে স্মরণীয় সিরিজ নিশ্চিত করার জয়ের লক্ষ্যে এখন টাইগারদের ফিল্ডিংয়ের ওই ঘাটতিগুলো ঝালিয়ে নেয়ার দিকে মনোযোগ দিয়েছে টিম ম্যানেজমেন্ট। আগামী বৃহস্পতিবার রাজকোটের সৌরাস্ট্র ক্রিকেট এসোসিয়েশন (এসসিএ) স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচ। ওই ম্যাচের আগে অনুশীলনে তাই ফিল্ডিংকেই বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। কারণ দ্বিতীয় ম্যাচের ফলাফলে ফিল্ডিংয়ের বড় একটি ভুমিকা থাকবে। প্রথম ম্যাচে জয় পেলেও মাঠের ইনার সার্কেলে টাইগারদের ফিল্ডিংয়ে কিছুটা স্লথ গতি দেখা গেছে। এ সময় রোহিত শর্মার বিদায়ের পরও প্রতিপক্ষের খেলোয়াড়রা চুরি করে কিছু রান নিয়েছে। বাংলাদেশ দলের প্রধান কোচ দক্ষিণ আফ্রিকার রাসেল ডোমিঙ্গো জানেন, সুনির্দিষ্টভাবে এটির উন্নয়ন ঘটানো বেশ কঠিন হবে। তবে এবার তিনি তার কোচিং স্টাফ হিসেবে পেয়েছেন নিউজিল্যান্ডের সাবেক অল রাউন্ডার ডেনিয়েল ভেট্টোরিকে। এসসিএ’র সবুজ মাঠে টাইগারদের ফিল্ডিং অনুশীলনের দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। এই কিউই একটি চেয়ারের দুই পাশে দু’টি বোর্ড বসিয়ে সেখানে জোরে বল ছুঁড়ে মারার নির্দেশ দেন খেলোয়াড়দের। বোর্ডে লেগে বল দ্রুত গতিতে ছুটে যেতে থাকে। এ সময় টাইগার দলের তরুণ তুর্কি আফিফ হোসেন বলেন, ‘আমরা জানি ক্রিকেটে ফিল্ডিং খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা এটি নিশ্চিত করতে চাই যে খেলার সময় কোন সুযোগই যেন হাতছাড়া হতে না পারে।’ প্রথম ম্যাচে এই টাইগার সদস্যই ফিরতি বলের ক্যাচ লুফে নিয়ে বিদায় করে দিয়েছিলেন স্বাগতিক দলের ব্যাটসম্যান শিবম দুবেকে। ম্যাচের শেষভাগে অবশ্য টাইগারদের ফিল্ডিংয়ে ছন্দপতন ঘটেছিল। তবে রাজকোটের এই ভেন্যুকে ব্যাটিং স্বর্গ হিসেবে বিবেচনা করা হয়। সুতরাং এখানে একটি সুযোগ কাজে লাগাতে পারলেও সেটি দলকে অনেকদূর এগিয়ে দেবে। আফিফ বলেন, ‘এখানকার উইকেটকে ব্যাটিং সহায়ক বলেই মনে হচ্ছে। তাই স্বাগতিকদের সামনে ভাল ম্যাচ উপহার দিতে হলে সবগুলো পরিকল্পনারই সঠিক বাস্তবায়ন করতে হবে।’ সম্প্রতি বাংলাদেশ তাদের ফিল্ডিংয়ের মানের উন্নতি ঘটিয়েছে। তবে প্রতি দিনই নিজেদের সেই ধারবাহিকতার উন্নয়ন ঘটাতে চায় টাইগাররা। অন্য যে কোন বিষয়ের তুলনায় ধারাবাহিকতার প্রতি গুরুত্বারোপ করেছেন বাংলাদেশ দলের প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু। তিনি বলেন, ‘মাঠে আপনাকে অবশ্যই ধারাবাহিক হতে হবে। কারণ সেটাই ম্যাচের প্রধান অনুসর্গ। আপনি একদিন ভাল করবেন কিন্তু অন্য দিন করবেন না। তাতে আপনি খুব বেশি উপকৃত হবেন না।’ নান্নু বলেন, ‘অতীতেও আমরা আমাদের ফিল্ডিংয়ে ধারাবাহিকতার ঘাটতি দেখেছি। তাই এবার আমাদের মনোযোগের কেন্দ্রবিন্দুতে রয়েছে ফিল্ডিং। হাইভোল্টেজ ম্যাচে একটি বা দু’টি ভাল ফিল্ডিং খেলার চেহারাই পাল্টে দিতে পারে। তাই আমাদের প্রয়োজন নিজেদের ফিল্ডিংয়ের মান আরো উন্নত করা।’


একটি উত্তর ত্যাগ

Please enter your comment!
Please enter your name here