জাপার রাজনীতি : খুলনায় জিএম কাদেরের সমর্থনের পাল্লা ভারী

0
127

নিজস্ব প্রতিবেদক
দু’দিন ধরে খুলনায় জাপার রাজনীতি নিয়ে আলোচনা হলেও উদ্বেগ-উৎকন্ঠা নেই। জেলা ও মহানগর জাপার ঐক্য অটুট রয়েছে। রাজধানীর ভাঙনের ঢেউ খুলনায় এসে পৌঁছায়নি। গঠনতন্ত্র অনুযায়ী দলের চেয়ারম্যান জিএম কাদেরকে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ সমর্থন দিয়েছে। কো-চেয়ারম্যান বেগম রওশন এরশাদের বক্তব্য গঠনতান্ত্রিক ও অযৌক্তিক বলে স্থানীয় নেতৃবৃন্দের অভিমত। খুলনার দু’টি কমিটির সিদ্ধান্ত তৃণমূলকে জানানোর লক্ষে আজ রোববার বেলা ১১টায় দলের স্থানীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে।
সংসদে বিরোধী দলের নেতার পদ নিয়ে স্পীকারের কাছে দু’পক্ষ চিঠি পাঠিয়েছে। এ নিয়ে দলের অভ্যন্তরে বিরোধের সৃষ্টি হয়েছে। দলের স্থানীয় নেতাদের ভাষ্য জাপা’র প্রতিষ্ঠাতা সাবেক রাষ্ট্রপতি এইচএম এরশাদ যাকে তার অবর্তমানে চেয়ারম্যান হিসেবে ঘোষণা দিয়েছেন, গঠনতন্ত্র অনুযায়ী তিনিই বৈধ চেয়ারম্যান। এই সূত্র দাবি করেন কেন্দ্রীয় পর্যায়ে দলের ত্যাগী নেতা কাজী ফিরোজ রশিদ, জিয়া উদ্দিন আহমেদ বাবলু গণমাধ্যমের কাছে স্পষ্ট বক্তব্য দিয়েছেন। বক্তব্যে বলা হয়, সংগঠনের গঠনতন্ত্রের ধারা ২০ উপধারা ১(ক)-এ স্পষ্টভাবে বলা আছে জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান যে কোনো পদে যে কোনো ব্যক্তিকে নিয়োগ দিতে পারবেন, যে কোনো ব্যক্তিকে অপসারণ করতে পারবেন। জীবদ্দশায় পার্টির প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান এইচ এম এরশাদ তার সহোদর জিএম কাদেরকে এই পদে মনোনয়ন দিয়েছে। ফলে এখানে বিরোধীতা করার কোনো সুযোগ নেই। নগর শাখার সদস্য সচিব মোল্লা শওকত হোসেন বাবুল এ প্রতিবেদককে জানান, খুলনায় দলের ঐক্য অটুট রয়েছে। জেলা ও নগর শাখা জিএম কাদেরের নেতৃত্বের প্রতি অনেক আগে থেকে আস্থা জ্ঞাপন করেছেন। তিন বলেন, এ ব্যাপারে বিরোধীতা করার কোনো সুযোগ নেই। জেলা শাখার অধীন নয়টি উপজেলা শাখা এবং মহানগরের অধীনে আটটি থানা শাখা জিএম কাদেরের নেতৃত্বের ওপর সমর্থন দিয়েছে। জেলা ও নগরের এ সিদ্ধান্ত তৃণমূলকে অবহিত করতে আজ বেলা ১১টায় দলের কেন্দ্রীয় ভাইস-চেয়ারম্যান ও সাবেক সংসদ সদস্য আব্দুল গফফার বিশ্বাস দলের ডাক বাংলোস্থ কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলন আহ্বান করেছে।
জেলা শাখার সভাপতি শফিকুল ইসলাম মধু এ প্রতিবেদককে জানান, চলমান পরিস্থিতিতে সিদ্ধান্ত জানানোর জন্য আজ সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়েছে। নগর ও জেলা শাখা জিএম কাদেরের নেতৃত্বের প্রতি সমর্থন দিয়েছে। অপ-প্রচারকারীদের বিরুদ্ধে সজাগ থাকার জন্য তিনি সর্বস্তরের কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন।