খুলনায় ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচলের সময় শেষ হচ্ছে আজ, ধর্মঘটে চালকরা

0
191
????????????????????????????????????

নিজস্ব প্রতিবেদক:
খুলনা মহানগরীতে ব্যাটারী চালিত রিকশা বন্ধে সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেকের বেধে দেওয়া সময় শেষ হচ্ছে আজ মঙ্গলবার। ইতোমধ্যেই কেসিসি’র উদ্যোগে মহানগরীতে ব্যাটারী চালিত রিকশার ৩৮৭টি চার্জিং পয়েন্ট শনাক্ত করা হয়েছে। এ সব চার্জিং পয়েন্ট থেকে বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন করতে কেসিসি এবং ওজোপাডিকো যৌথভাবে গতকাল সোমবার থেকে অভিযান শুরু করেছে।
এদিকে ব্যাটারী চালিত রিকশা বন্ধের প্রতিবাদে সোমবার সকাল থেকে অনির্দিষ্টকালের জন্য ধর্মঘট শুরু করেছে শ্রমিক মালিক ঐক্য পরিষদ। সকাল থেকে দুপুর পর্যন্ত রিকশা চালকরা নগরীর সাত রাস্তার মোড়ে বিক্ষোভ সমাবেশ করেন। এ সময় তারা সাবেক সংসদ সদস্য ও মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক মিজানুর রহমান মিজানের বাড়ির সামনে বেশ কিছু সময় অপেক্ষা করেন। এরপর জাতিসংঘ পার্ক হয়ে মহানগর আওয়ামী লীগ অফিসের সামনে গিয়ে তারা বিক্ষোভ প্রদর্শন করেন। ধর্মঘটের কারণে বিভাগীয় নগরী খুলনায় যাত্রীরা পড়েছেন সীমাহীন দুর্ভোগে। বাড়তি ভাড়া দিয়ে তাদের যাতায়াত করতে হচ্ছে বেবি, টেম্পু, মাহেন্দ্র ও ইজিবাইকে।
অপরদিকে খুলনা সিটি কর্পোরেশনের কাউন্সিলরবৃন্দের এক মতবিনিময় সভা গতকাল সোমবার দুপুরে নগর ভবনের শহীদ আলতাফ মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত মেয়র মো: আমিনুল ইসলাম মুন্না।
সভায় জানানো হয়, নগরবাসীর দাবির প্রেক্ষিতে ইতোপূর্বে ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নেয়া হলেও পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর, ঈদ-উল-আযহা ও দুর্গা পূজাকে সামনে রেখে দুই দফা সময় বৃদ্ধি করা হয়। সে কারণে কেসিসি’র পূর্বনির্ধারিত সিদ্ধান্তের আলোকে আজকের থেকে নগরীতে ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচল বন্ধ থাকবে। একইসাথে ইজিবাইকের আদলে তৈরীকৃত ক্ষুদ্রাকৃতির ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচলও বন্ধ থাকবে। তবে ব্যাটারী সংযোগ বিহীন রিকশা চলাচলে কোন বাধা থাকবে না।
কেসিসি’র কাউন্সিলরবৃন্দ সভায় নগরীতে যানবাহন চলাচলে শৃঙ্খলা রক্ষা, যানজট নিরসন ও বেপরোয়াভাবে ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচলের কারণে সৃষ্ট দুর্ঘটনা রোধে কেসিসি’র এ সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নে প্রশাসনসহ সংশ্লিষ্ট সকলের সহযোগিতা কামনা করেন। তারা বলেন, খুলনা আমাদের প্রিয় নগরী। সুন্দর নগর জীবন আমাদের সকলের কাম্য। সম্মিলিতভাবে এ নগরীকে বসবাসের উপযোগী রাখতে হবে। খুলনা মহানগরীর কেউ আমাদের প্রতিপক্ষ নয় উল্লেখ করে তারা বলেন, নগরবাসীর নিরাপদ চলাচল নিশ্চিত করতে এ কার্যক্রম হাতে নেয়া হয়েছে। ব্যাটারী চালিত রিকশা চলাচল বন্ধে আগামীকাল বুধবার থেকে কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলরের নেতৃত্বে নিজ নিজ ওয়ার্ড এলাকায় ক্যাম্পেইন করা হবে বলে সভায় জানানো হয়।
সভার শুরুতে কেসিসি’র প্যানেল মেয়র মো: আলী আকবর টিপু’র মাতা আলহাজ্ব সাজেদা বেগম-এর ইন্তেকালে শোক প্রস্তাব গৃহীত হয় এবং মরহুমার রূহের মাগফেরাত কামনা ও শোকাহত পরিবারের সদস্যদের প্রতি সমবেদনা জানানো হয়।
কেসিসি’র প্যানেল মেয়র আলী আকবর টিপু, মেমরী সুফিয়া রহমান শুনু, কাউন্সিলর মো: সাইফুল ইসলাম, মো: আব্দুস সালাম, শেখ মোহাম্মদ আলী, মো: ডালিম হাওলাদার, কাজী তালাত হোসেন কাউট, মুন্সী আব্দুল ওয়াদুদ, এস এম খুরশীদ আহম্মেদ টোনা, শেখ হাফিজুর রহমান হাফিজ, মো: হাফিজুর রহমান মনি, মো: শামসুজ্জামান মিয়া স্বপন, কাজী আবুল কালাম আজাদ বিকু, ইমাম হাসান চৌধুরী ময়না, মো: গোলাম মাওলা শানু, জেড এ মাহমুদ ডন, ফকির মো: সাইফুল ইসলাম, এস এম মোজাফফর রশিদী রেজা, সংরক্ষিত আসনের কাউন্সিলর মনিরা আক্তার, সাহিদা বেগম, রহিমা আক্তার হেনা, পারভীন আক্তার, মাজেদা খাতুন, লুৎফুন নেছা লুৎফা প্রমুখ সভায় মতামত তুলে ধরেন।