কর্মহীনদের বাড়িতে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী

0
75

খুলনাটাইমস ডেস্ক : প্রাণঘাতী করোনার কারণে কর্মহীন হয়ে পড়া দিনমজুর, দরিদ্র ও নিম্নআয়ের মানুষের বাড়িতে রাতের আঁধারে খাবার পৌঁছে দিচ্ছেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল। দরিদ্র মানুষের তালিকা ধরে তিনি নিজ এলাকার মানুষের মাঝে এই ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেন বলে শুক্রবার এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে। জনসমাগম এড়াতে খাদ্যসামগ্রী নিয়ে প্রতিমন্ত্রীর পক্ষ থেকে তার কর্মীরা গভীর রাতে বাড়ি বাড়ি ছুটছেন। বৃহস্পতিবার গভীর রাতে প্রতিমন্ত্রীর নিজ এলাকা গাজীপুরের জয়দেবপুর, টঙ্গীর কেরানিরটেক বস্তি, কো-অপারেটিভ ব্যাংক মাঠ বস্তি, নোঁয়াগাও রেল কলোনি ও আশপাশের এলাকায় এই কার্যক্রম চালানো হয়। ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রীর পক্ষে তার চাচা গাজীপুর মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মতিউর রহমান মতি ঘরে ঘরে গিয়ে এই ত্রাণসামগ্রী পৌঁছে দেন। ত্রাণ সামগ্রীতে ছিলো চাল, ডাল, আলু, পেঁয়াজ, লবণ, ভোজ্যতেল ও সুরক্ষা সামগ্রী। যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ আহসান রাসেল বলেন, ‘করোনা মোকাবিলায় কয়েক দিন ধরে যানবাহন, কল কারখানা-দোকান ও বিপনী বিতান বন্ধ। ঘর থেকে বের হচ্ছে না কেউ। অসহায় হয়ে পড়েছে অনেক দিনমজুর, দরিদ্র ও নিম্ন আয়ের মানুষ। তাই প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে আমার নিজ নির্বাচনী এলাকার সকলের জন্য সাধ্যমতো নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য পৌঁছে দিচ্ছি।’ প্রাথমিকভাবে প্রথম ধাপে ৫০ হাজার পরিবারের জন্য খাবার পৌঁছে দেয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে বলে তিনি জানান। এই ত্রাণ শুধুমাত্র গাজীপুরের ভোটারদের জন্য নয় জানিয়ে প্রতিমন্ত্রী বলেন, কে ভোটার আর কে ভোটার না এটা দেখে আমি ত্রাণ দিচ্ছি না। আমার ত্রাণ সকল অসহায় মানুষের কাছে পৌঁছে দেয়া হবে। করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে কর্মহীন হয়ে পড়া মানুষের পাশে সরকারের পাশাপাশি সমাজের বিত্তবানদেরও এগিয়ে আসার আহবান জানান প্রতিমন্ত্রী।