এ বাজেট কৃষি, শিক্ষা, সাংস্কৃতি, শিল্প ও বিনিয়োগ বান্ধব একটি বাজেট- নগর আ’লীগ

0
138

খবর বিজ্ঞপ্তি:
প্রধানমন্ত্রী দেশরত্ন জননেত্রী শেখ হাসিনা সরকার ঘোষিত ৪৮তম বাজেট জনকল্যাণ ও গণমূখী বাজেট বলে অভিনন্দন জানিয়েছেন খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ এবং সংসদ সদস্যবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ বাজেট প্রতিক্রিয়ায় বলেন, এ বাজেটে যেমন কৃষির উপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে, তেমনি শিক্ষা, সাংস্কৃতি, শিল্প ও বিনিয়োগ এবং কর্মসংস্থানের উপর অধিক গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। এ বাজেট কৃষি, শিক্ষা, শিল্প ও বিনিয়োগ বান্ধব একটি বাজেট। এ বাজেট বাস্তবায়ন হলে এদেশের শিক্ষিত, অর্ধশিক্ষিত ও কম শিক্ষিত বেকার যুবক যুবতীরা তাদের যোগ্যতানুযায়ী কর্মসংস্থান পাবে। এছাড়া দেশে বিদেশে কর্মসংস্থান বাড়বে। ২০২১ এবং ২০৪১ এর মধ্যে বাংলাদেশ উন্নত দেশ হিসেবে বিশ্বে মাথা উঁচু করে দাড়ানোর বাজেট হয়েছে বলে বিবৃতি দিয়েছেন খুলনা মহানগর ও জেলা আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দ। নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, কৃষিকে আরো আধুনিকায়ন করতে কৃষিতে উন্নত প্রযুক্তি এবং দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত কৃষকদের জন্য কৃষি বীমার ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। বেকারদের কর্মসংস্থানের জন্য একশত কোটি টাকা বাজেটে রাখা হয়েছে। বাজেটে সবার জন্য পেনশনের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে। যা অতীতে কোন সরকার করতে পারেনি। নেতৃবৃন্দ ২০১৯-২০২০ অর্থবছরের বাজেটকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, এ বাজেট বাস্তবায়নে সকল মেগাপ্রকল্প যথাসময়ে শেষ করার জন্য সংশ্লিষ্টদের প্রতি আহবান জানিয়েছেন। একই সাথে শেখ হাসিনা ঘোষিত রূপকল্প ২০২১ ও ২০৪১ বাস্তবায়ন করতে দলের নেতাকর্মী সহ সকলকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করারও আহবায়ন জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছেন, কেন্দ্রিয় নেত্রী, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সভাপতি ও সিটি মেয়র আলহাজ্ব তালুকদার আব্দুল খালেক, খুলনা-২ আসনের সংসদ সদস্য সেখ সালাহ্ উদ্দিন জুয়েল, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান শেখ হারুনুর রশীদ, খুলনা মহানগর আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক, ১৪ দলের সমন্বয়ক ও সাবেক সংসদ সদস্য আলহাজ্ব মিজানুর রহমান মিজান, খুলনা জেলা আওয়ামী লীগ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এ্যাড. সুজিত কুমার অধিকারী, খুলনা-৬ আসনের সংসদ সদস্য আকতারুজ্জামান বাবু।