অভিভাবকদের “সচেতনতা” বৃদ্ধি পেলে “বাল্যবিবাহ” রোধ হয়:ওসি রবিউল হোসেন

0
171

ওবায়দুল কবির(সম্রাট):কয়রা(খুলনা)প্রতিনিধিঃ

কয়রা থানার অফিসার ইনচর্জ মোঃ রবিউল হোসেনে বলেছেন, অভিভাবকদের সচেতনতা যেমন সমাজকে পরিবর্তন করতে পারে, তেমনিভাবে অভিভাবকদের অসচেতনতা সমাজকে তছনছ করতে পারে। যেখানে অভিভাবক সচেতন সেখানে বাল্যবিবাহ রোধ হয়, বাল্যবিবাহ দূর হয়। যেখানে অভিভাবক অসচেতন সেখানে বাল্যবিবাহ বৃদ্ধি পায়, পরিবার বিপর্যস্থ হয়, সমাজ ধ্বংসের দিকে এগিয়ে যায়।তিনি আরও বলেন “আমরা দৃঢ় প্রতিজ্ঞ, মাদক, সন্ত্রাস ও জঙ্গিবাদ মুক্ত সমাজ গড়ার জন্য। আমরা মাদক এবং সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স নীতির উপর ভিত্তি করে, আমাদের অভিযান অব্যাহত রেখেছি। এক্ষেত্রে আপনাদের সকলের সার্বিক সহযোগিতা আমাদের একান্ত প্রয়োজন। তিনি (২৮জানুয়ারী) মঙ্গলবার বেলা ১১ টায় ইউএসএআইডি’র খাদ্য নিরাপত্তা উন্নয়ন কার্যক্রম নবযাত্রার সহযোগীতায় কয়রা উপজেলার এতিহ্যবাহি বিদ্যাপিঠ বড়বাড়ি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে আয়োজনে১৮’র আগে বিয়ে নয় স্কুল পর্যায়ে অভিভাবক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। বিদ্যালয় পরিচালনা কমিটির সভাপতি সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান সরদার মতিয়ার রহমানের সভাপতিত্বে ও শিক্ষক দিপক কুমার মিস্ত্রীর পরিচালনায় অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন কয়রা সদর ইউপি চেয়ারম্যান ও বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাঃ হুমায়ুন কবির, প্রেসক্লাব সভাপতি মোস্তফা শফিকুল ইসলাম, উপজেলা যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আঃ রশিদ খান, প্রাক্তন ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব শেখ ওয়াজেদ আলী ও বিশিষ্ঠ সমাজে সেবক সরদার লুৎফর রহমান। যবযাত্রা প্রকল্পের আয়োজনে সমাবেশে বক্তব্য রাখেন প্রেসক্লাবের কোষাধাক্ষ্য মোঃ রিয়াছাদ আলী, বিশিষ্ট ব্যবসায়ী মইদুল ইসলাম সানা, প্রভাষক মাসুম বিল্যাহ,শিক্ষক আবুল বাশার, অচিন্ত মন্ডল,সেলিম হোসেন, ইউপি সদস্য পতিত পাবন মন্ডল, হাবিুবল্যাহ, রেজাউল করিম কারিম, আবু হাসান, সুলতানা মিলি, সাংবাদিক শেখ কওছার আলম, জিয়াউর রহমান ঝন্টু, আজিজুল ইসলাম, ওবায়দুল কবির সম্রাট , নবযাত্রার শরিফুর রহমান, শিক্ষার্থী শিয়াম হোসেন প্রমুখ। এরপর একই স্থানে বিদ্যালয়ের ২০২০ সালের এসএসসি পরীক্ষার্থীদের বিদায় ও দোয়া অনুষ্ঠিত হয়। দোয়া মাহফিল পরিচালনা করেন মাওলানা আঃ রহিম।এ সময় উপস্থিত ছিলেন এলাকার জনপ্রতিনিধি, সেচ্ছাসেবী সংগঠনের নেতৃবৃন্দ, ওই স্কুলের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, অভিভাবক, সামাজিক-রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গসহ বিভিন্ন শ্রেণি- পেশার মানুষ।